নেত্রকোণা সদর

রক্তদানে নেত্রকোনা নামের তরুণদের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের কম্বল বিতরণ

নেত্রকোনায় শীতের উপহার হিসেবে অসহায়দের মাঝে কম্বল বিতরণ করেছে ‘রক্তদানে নেত্রকোনা’ নামের তরুণদের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

আজ শুক্রবার সকাল ১১ টায় পৌর শহরের দত্ত উচ্চবিদ্যালয় মাঠে এই কম্বল বিতরণ কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ২০০ জন নারী পুরুষের মাঝে এসকল কম্বল বিতরণ করা হয়।

কম্বল ছাড়াও দুজন প্রতিবন্ধী শিশুর মাঝে সহায়ক উপকরণ হিসেবে দুটি হুইল চেয়ার বিতরণ করেছে তরুণরা।

পরে সকলকে ভালো খাবার দেয়া হয়েছে।
তরুণদের এমন একটি মহৎ উদ্যোগ স্বচক্ষে দেখতে তাদের পিতামাতারাও উপস্থিত ছিলেন।
এসময় নিজ সন্তানেরা তাদেরকে শুভেচ্ছা স্মারক হিসেবে মেডেল পড়িয়ে দেন।
শীতের উপহার বিতরণ অনুষ্ঠানে রক্তদানে নেত্রকোনার মাকসুদুল হাসান জনি, শেখ অলি, মীর মেহেদী হাসান পরাগ, খাইরুল ইসলাম, মীর্জা হৃদয় সাগর, মারজিয়া তালুকদার, সানজিদা রহমান তোরা সহ প্রায় সংগঠনের রক্তদানকারী ৪০ তরুণ উপস্থিত ছিলেন।

এসময় আনুষ্ঠানিকভাবে উপহার তুলে দেন প্রেসক্লাবের সম্পাদক শ্যামলেন্দু পাল, অভিভাবক শিকড় উন্নয়ন কর্মসূচির সম্পাদক জিয়াউর রহমান খোকন, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবি এম শাহজাহান কবীর সাজু, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক রমা রায়, অভিভাবক সাংবাদিক আলপনা বেগম।
এসময় তরুণরা জানান, তারা শুধুমাত্র মুমূর্ষু রোগীদের রক্তদানই করেন না। যে কোন সমস্যায় নিজেদের উদ্যোগে এগিয়ে যান।
তারা আজকের এই আয়োজনে অভিভাবকদের এনে উপস্থিত করেছেন তারা কি কাজ করেন সমাজের জন্য সেটি স্বচক্ষে দেখাতে।
এসময় অভিভাবক জিয়াউর রহমান খোকন জানান, তিনি অত্যন্ত গর্ববোধ করছেন যে তাদের সন্তানরা নিজ থেকেই সমাজের মানুষের জন্য পাশে দাঁড়িয়েছে। কোন রাজনৈতিক বা কারো ছত্রছায়া ছাড়াও নিজেরা মানুষের জন্য দাঁড়াতে পারে এটাই সত্যিকারের মানবিকতা। তিনি বলেন, আমাদের তরুণ প্রজন্ম সবগুলো বিপথে যায়নি। এটাই বড় উদাহরণ।

তবে প্রতিটি অভিভাবকদেরকে তাদের সন্তানদের একজন মানবিক মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার দ্বায়িত্ব।

তাই তিনি বলেন আমি অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানাবো সন্তানদের শুধু পাস করানোর প্রতিযোগিতায় না গিয়ে, বড় বড় লোভ না দেখিয়ে মানবিক মানুষ হিসেবে গড়ে তুলুন। তাহলে দেখবেন সমাজ আপনার আমার দাঁড়াই অনেক সুন্দর হবে। আপনার সন্তানের দারা অন্য কারো সন্তানের ক্ষতি হবে না। এ দ্বায়িত্ব আপনার আমার সকলের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button